Monday, March 1st, 2021




হাসতে হাসতে আত্মহত্যা করেন ২৩ বছরের তরুণী

হাসতে হাসতে আত্মহত্যা করেন ২৩ বছরের তরুণী

কালের সংবাদ আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গুজরাতের আমদাবাদে সবরমতী নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ২৩ বছরের এক বিবাহিত তরুণী। আত্মহত্যার আগে নদীর পাশে হাসিমুখে একটি ভিডিও রেকর্ড করেন তিনি। যা ছড়িয়ে পড়েছে নেটমাধ্যমে। সেই ভিডিওতে আবেগতাড়িত হয়ে বেশ কিছু কথা বলেন ওই তরুণী।

ভিডিওতে দেখা গেছে, নিজের ইচ্ছাতেই জীবন শেষ করছেন তিনি। যদিও তার বাবার অভিযোগ, পণের জন্য শ্বশুরবাড়ির নিরন্তর ঝামেলার কারণেই আত্মহত্যা করেছেন আয়েশা।

সোমবার (১ মার্চ) ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনা নিয়ে পুলিশ ইতোমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে। নদী থেকে আয়েশার মরদেহও উদ্ধার করা হয়েছে। মেয়ের মৃত্যু নিয়ে আয়েশার বাবা লিয়াকত আলি জানিয়েছেন, রাজস্থানের জালোরের বাসিন্দা আরিফ খানের সঙ্গে তার মেয়ের বিয়ে হয়েছিল ২০১৮ সালের জুলাই মাসে। বিয়ের পর থেকেই পণের জন্য চাপ দিতো শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। আমি কিছু টাকা দিয়েছিলাম। কিন্তু তাদের লোভ এতে বেড়ে গিয়েছিল। কয়েক মাস আগে আয়েশার সঙ্গে ঝামেলা হয় আরিফের। তার পর আয়েশা এখানে ফিরে আসে। তখনও ফোনেও কথা হতো না ওদের মধ্যে।

আয়েশার রেকর্ড করা ২ মিনিটের ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা যায়, যে সিদ্ধান্ত আমি নিতে যাচ্ছি, এর জন্য কেউ আমাকে চাপ দেয়নি। বুঝলাম সৃষ্টিকর্তা আমাকে ছোট্ট জীবনই দিয়েছেন। বাবা, তুমি আর কত লড়বে? মামলা তুলে নাও। যে স্বাধীনতা চাই তাকে মুক্ত করে দাও।

ভিডিওর শেষে আয়েশা বলেন, আমি আমার জীবন শেষ করতে চলেছি। আল্লাহর সঙ্গে দেখা হবে ভেবে আমি খুশি। দেখা হলে তাকে জিজ্ঞাসা করব, আমি কী ভুল করেছি? আমার দোষ কী? সব শেষে আবেগতাড়িত হয়ে আয়েশাকে বলতে শোনা যায়, এই সুন্দর একলা নদীর কাছে আমার অনুরোধ, আমাকে যেন এ নদী নিজের মধ্যে প্রবেশ করতে দেয়। আমি হাওয়ার মতো উড়ে যেতে চাই। ভেসে যেতে চাই।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category