লিঙ্গ পরিবর্তন করে বন্ধুকে বিয়ে করলেন আরেক বন্ধু

বিনোদন ডেস্ক:   মডেলিং করতে গিয়ে কলকাতায় পরিচয় হয় অনীক ও সাগ্নিকের। পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের বাসিন্দা অনীক দত্ত  আর অপর জন হলো জলপাইগুড়ির বাসিন্দা সাগ্নিক চক্রবর্তীর । এরপর পরস্পর কাছে আসা, প্রেম শেষে বিয়ে।

কিন্তু এ বিয়েটা সহজ ছিল না। কারণ দুই জনই পুরুষ। সমাজও মেনে নেবে না। তাই অনীক ঠিক করলেন অস্ত্রোপ্রচারের মাধ্যমে লিঙ্গ পরিবর্তন করে ভালবাসার পাত্র সাগ্নিক-কে বিয়ে করবেন। যেই ভাবা সেই কাজ। অনীক থেকে হলেন অ্যানি। গত ১০ অক্টোবর পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে লিঙ্গ পরিবর্তনের পর নিজের নাম পাল্টানোর কথাও জানান অনীক।

প্রথমে বাড়ি থেকে আপত্তি থাকলেও অবশেষে অনীক ও সাগ্নিক-এর প্রেমের কাছে হার মানে দুই পরিবারের লোকজনেরা। গতকাল রবিবার চার হাত এক হয় বালুরঘাটের অ্যানির ও জলপাইগুড়ির সাগ্নিকের। জলপাইগুড়ির টাউন ক্লাবের বিয়ে বাড়ি ভাড়া নিয়েই বাঙালি তথা হিন্দু শাস্ত্র মতেই বিয়ে সম্পন্ন হয়।

অ্যানির পরনে ছিল লাল টুকটুকে বেনারসী, গলায় ও হাতে সোনার গহনা। অন্যদিকে হলুদ রঙের পাঞ্জাবী ও লাল রঙের ধুতি পরিহিত সাগ্নিককেও বেশ দেখাচ্ছিল।

অ্যানি ও সাগ্নিক দুজনেই পেশায় শিক্ষক।  বিয়ের পর দুইজনেই নিজেদের সাংসারিক জীবন সুখের জন্য সকলের আশীর্বাদ চেয়েছেন।

সাগ্নিক জানান, প্রায় আড়াই বছর আগে মডেলিং করার সূত্রে আমাদের মধ্যে আলাপ হয়। অনীক ও আমার বন্ধুত্বের সম্পর্ক প্রেমে গড়ায়। তখন আমরা ঠিক করি আমরা উভয়েই সারা জীবন একসাথে থাকবো। আমি খুবই খুশি যে আজ আমরা দুইজনেই একসাথে রয়েছি।

অন্যদিকে সাগ্নিকের সাথে এই বিয়ে তার কাছে স্বপ্ন পূরণের মতো বলে জানালেন অ্যানি। সে জানায়, সাগ্নিকের সাথে একসাথে থাকার ব্যাপারে আমি ভেবেচিন্তেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আজ বিয়ের পর এটা বাস্তবে পরিণত হল। আমি আশা করবো যে কোনরকম সামাজিক বিভেদকে দূরে সরিয়ে রেখে মানুষ আমাদের বিয়েকে মেনে নেবে।

এনআই/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category