লক্ষ্মীপাশায় মহাসড়কের ওপর প্রতিদিন সকাল-বিকেল বাজার প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল: নড়াইলের লক্ষ্মীপাশা, ভাটিয়াপাড়া-ঢাকা মহাড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ‘লক্ষ্মীপাশা চৌরাস্তা’। নড়াইল-লক্ষ্মীপাশা চৌরাস্তা মহাসড়কের ওপর বসে বাজার । ফলে লেগে থাকে যানজট, ঘটছে দুর্ঘটনা।

নড়াইল-লক্ষ্মীপাশা চৌরাস্তা এলাকার বাসিন্দা সৌরভ হাসান বলেন, মহাসড়কের ওপরই প্রতিদিন সকাল-বিকেল বাজার বসে। সেখানে বিক্রি হয় তরকারি ও মাছ। মহাসড়কের ওপরই ঢাকা ও স্থানীয় রুটের বাসস্ট্যান্ড এবং মাইক্রো, টেম্পু, মোটরসাইকেল ও নসিমন স্ট্যান্ড। সড়কের ওপর দাঁড়িয়েই যাত্রী উঠানামা করানো হয়। এছাড়া মহাসড়কের জায়গায় অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে নানা ধরনের দোকান-পাট।

চৌরাস্তার লাগোয়া দক্ষিণে নড়াইলের লক্ষ্মীপাশা আদর্শ মহিলা ডিগ্রি কলেজ ও উপজেলা পরিষদ। উত্তর পাশে লক্ষ্মীপাশা আদর্শ বিদ্যালয়, লক্ষ্মীপাশা বালিকা বিদ্যালয়, আরএলপাশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, থানা ও হাসপাতাল। এ অবস্থায় সর্বক্ষণ লেগে আছে যানজট।

নড়াইলের লক্ষ্মীপাশা আদর্শ মহিলা ডিগ্রি কলেজ শিক্ষার্থী মিতা খানম বলেন, ‘বাজার, দোকানপাট ও যানবাহনের স্ট্যান্ডের কারণে মহাসড়ক সরু হয়ে গেছে। তাই জনবহুল এই স্থানটিতে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। সড়ক পার হতে আতঙ্কে থাকতে হয়।’  আরএলপাশা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘ওই চৌরাস্তার অবস্থার কারণে ছেলেমেয়ে স্কুলে পাঠিয়ে দুশ্চিন্তা কাটে না। যানজট হয় ঢাকা শহরের মতো।’

মহাসড়কের ওপর কাঁচা তরকারি বিক্রেতা নূর ইসলাম শেখ বলেন, ‘সবাই সড়কের ওপর বসে বলে আমিও বসি।’ ঢাকাগামী ঈগল পরিবহনের লক্ষ্মীপাশা কাউন্টার ব্যবস্থাপক এনামুল হোসেন বলেন, ‘সড়কের বাইরে ব্যবস্থা না থাকায় বাধ্য হয়ে সড়কের ওপর গাড়ি পার্কিং করতে হয়। তবে এতে মারাত্মক ঝুঁকি আছে।’ লোহাগড়া পৌরসভার স্থানীয় কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন ভুইয়া বলেন, ‘সমস্যাটি দীর্ঘদিনের, তাই রাতারাতি সমাধান করা সম্ভব নয়। তবে এর স্থায়ী সমাধানের জন্য পদক্ষেপ নেব।’

নড়াইলের লোহাগড়ার ইউএনও মুকুল কুমার মৈত্র বলেন, ‘বাজার, দোকান-পাট ও যানবাহনের স্ট্যান্ডের জন্য ওই স্থানটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ নড়াইলের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘এরইমধ্যে নড়াইল শহরের একটি অংশে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছি। নড়াইলের লক্ষ্মীপাশা চৌরাস্তায় অল্প সময়ের মধ্যেই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে।

এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category