মাদ্রাসার শতভাগ বিল্ডিং ফাটল ধরার কারণে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান

সানাউল হক, (বাউফল-পটুয়াখালী): পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালিশুরী ইউনিয়নের সিংহেরা কাঠী গ্রামের কুরআন সুন্না দাখিল মাদ্রাসার ভবনটি ঝুুঁকিপূর্ণ হওয়ায় বিপাকে পড়েছে শিক্ষক ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। বাধ্য হয়েই মাদ্রাসার  পাঠদান চলছে খোলা আকাশের নিচে।
সরেজমিনে মাদ্রাসার  শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নির্মাণের সতের বছরের মাথায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছেন বাউফল উপজেলার কালিশুরী  ইউনিয়নের  কুরআন সুন্না দাখিল মাদ্রাসার ভবনটি।
বিশেষ করে বিল্ডিংয়ের  বিম, ওয়ালগুলোর ফাটল, প্লাস্টার খসে পড়ায় মাদ্রাসার শিক্ষকরা বাধ্য হয়ে মাদ্রাসার  মাঠে ক্লাস নিচ্ছেন। ফলে খোলা আকাশের নিচে চলছে শিশুদের পাঠদান কার্যক্রম।এতে দীর্ঘদিন ধরে, বর্ষা আর গ্রীষ্মকালে খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করায় অসুস্থ হয়ে পড়ছে শিশুরা। এছাড়া বৃষ্টি হলে শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসা তে  আর আসে না।
এ ব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি রফিকুল  ইসলাম  জানান, ১৭ বছর আগে সরকারিভাবে একজন ঠিকাদার মাদ্রাসাটির  ভবনটি নির্মাণ করেছিল।তার অভিযোগ বিশেষ করে বিল্ডিংয়ের প্লাষ্টার, বিম, ওয়ালগুলোতে ফাটল ধরায় ও বালুর সাথে সিমেন্টের পরিমাণ কম দেয়ায়  প্লাষ্টার খসে পড়ায় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।
বাধ্য হয়ে খোলা আকাশের নিচে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদান (ক্লাস) করাতে হচ্ছে।এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান সুপার আবু ইউসুফ  সাথে কথা বললে তিনি জানান, সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়লেও সে হারে শ্রেণী কক্ষ বাড়েনি, বাইরে ক্লাস করায় অভিভাবকরা তাদের শিশুদের মাদ্রাসায়  যেতে নিষেধ করেন।
তিনি আরো বলেন, দিনে দিনে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কমে যাচ্ছে। বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার লিখিতভাবে জানিয়েও কোনো ফল হয়নি। তিনি দ্রুত স্কুল ঘরটি মেরামতের দাবি জানান।এদিকে এলাকার সকল শিক্ষার্থীদের দাবি বর্তমান শিক্ষা বান্ধব সরকারের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বিবেচনা করে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন এমনটিই প্রত্যাশা।
এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category