মতলব উত্তরের নাউরী বিশ্ব রহমত মঞ্জিলে ওরস শরীফ

মনিরুল ইসলাম মনির, মতলব-উত্তর, চাঁদপুর:  মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়নের উত্তর নাউরীতে বিশ্ব রহমত মঞ্জিলে মহা পবিত্র ওরছ মোবারক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২রা মার্চ শাহানশাহে তরিকত গাউছুল আযম হযরত খাজা মুহাম্মদ ইউনুস আলী এনায়েতপুরী নক্সবন্দী মোজাদ্দেদীয়া (র.) এর বাৎসরিক মহা পবিত্র ওরছ মোবারকে হযরত মাওলানা শাহ্ সূফি মো. ইদ্রিস আলী যশোরী (র.) এর বড় পীরজাদা খাজা সৈয়দ আহাম্মদ আলী নক্সবন্দী মোজাদ্দেদীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ওরছ মোবারকে বয়ান রাখেন- মাওলানা শাহ্ মনিরুল ইসলাম, মাওলানা খলিলুর রহমান, মাওলানা আশরাফুল ইসলাম, মাওলানা মো. শাহজালাল। পরিচালনা করেন- রফিকুল ইসলাম তালুকদার।

খাজা সৈয়দ আহাম্মদ আলী নক্সবন্দী মোজাদ্দেদী বলেন, খাজা এনায়েতপুরী ভোগ বিলাসী জীবনযাপনের চরম বিরোধী ছিলেন। তিনি ইসলামের মর্মবাণী- তরিকত দর্শন প্রচারের পাশাপাশি সমাজ সেবামূলক কাজেও রেখেছিলেন অনন্য অবদান। খাজা এনায়েতপুরী কে ভক্তবৃন্দ সুলতানুল আউলিয়া এবং চিরস্থায়ী সংস্কারের জন্য আখেরী মুজাদ্দেদ বলে অভিহত করেন।

অবিভক্ত ভারত-বাংলার অন্যতম ধর্ম প্রচারক তৎকালীন কোলকাতার মেহেদীবাগ দরবার শরীফের পীর আওলাদে রসূল খাজা ওয়াজেদ আলী (রঃ) এর সংস্পর্শে আসেন খাজা ইউনুছ আলী (রঃ)। তাঁর আদর্শিক কর্মকান্ড এবং মানুষের প্রতি অগাধ ভালবাসা আর নির্লোভ গুণের কারনে খুব স্বল্প সময়ে খাজা ইউনুছ আলী এনায়েতপুরী (রঃ) গুরু খাজা ওয়াজেদ আলী (রঃ) এর তরিকা লাভ করেন। ভোগ বিলাসী জীবনের বিরোধী এই মহামানব মাত্র ১৭ বছর বয়সে ইসলাম ও সূফীবাদের দর্শন ভারতের আসামসহ সারা বাংলায় প্রচারে খেলাফত প্রাপ্ত হন।

একজন পরিপূর্ণ মানবতাবাদী হিসেবে তিনি সারাটা জীবন অসহায় দুঃখী মানুষদের নিজের হাতে সহযোগীতা করে গেছেন। বিনা পয়সায় সেবা দিয়ে যাওয়া আধুনিক চিকিৎসার এই প্রতিষ্ঠানটি দেশ-বিদেশ থেকে আগত লাখো জাকের ও এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category