125562654

ভারতে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২ জন

বিপ্রদ্বীপ দাস,(হুগলি,কলকাতা,ভারত): ভারতে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা এসে দাঁড়াল ৬০৬ জন। বুধবার নতুন করে সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছে ৮৭ জনের। অন্য দিকে বুধবার তামিলনাড়ুতে এক জন এবং মধ্যপ্রদেশে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে দেশের মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২। করোনা সংক্রমণে এই প্রথম মৃত্যু হল তামিলনাড়ুতে।

সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলিতেও। প্রথম আক্রান্তের খবর পাওয়া গিয়েছে মিজোরামে। এ দিন মধ্যপ্রদেশে নতুন করে ৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। উত্তরপ্রদেশের পিলভিতে আক্রান্ত হয়েছেন আরও এক জন। সেদিক থেকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে অনেক সুরক্ষার মধ্যেই আছে আপাতত। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দিন-রাত মিটিং করে যাচ্ছেন যে কীভাবে করোনাভাইরাসকে আটকানো যায়।

দেশের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে কেরল। সেখানে ১০৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ১০১ জন আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এর মধ্যেই স্বস্তির খবর, ইতিমধ্যেই দেশে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪০ জন। সংক্রমণ ঠেকাতে আগেই রাজ্যগুলি লকডাউন, কার্ফু জারি করেছিল। তা কার্যকর ছিল ৩১ মার্চ পর্যন্ত। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেন, গোটা দেশে লকডাউন জারি থাকবে আরও ২১ দিন, অর্থাৎ ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত।

এই সময় সকলকেই ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে জরুরি পরিষেবাগুলো অব্যাহত থাকবে বলেই জানিয়েছেন তিনি। দেশে সংক্রমণ যাতে দ্রুত গতিতে না বাড়তে পারে, তার জন্য সামাজিক দূরত্বও বজায় রাখার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্র ও রাজ্য প্রশাসনগুলোর তরফে। তার পরেও লকডাউন অমান্য করার অভিযোগ উঠেছে বিভিন্ন রাজ্যে। ফলে এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কোনও কোনও রাজ্য কার্ফুও জারি করেছে।

অন্য দিকে, বিশ্বেও আক্রান্তের সংখ্যাটা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। প্রতি দিনই কয়েকশো মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন। ইতিমধ্যেই গোটা বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১৮ হাজার। ইটালিতে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সেখানে মৃত্যু হয়েছে সাড়ে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষের। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৭০ হাজার। অন্য দিকে, চিনে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৮২ হাজার।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category