Monday, November 23rd, 2020




ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নযুদ্ধ ও প্রচারনায় ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা

ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নযুদ্ধ ও প্রচারনায় ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা

কালের সংবাদ ডেস্ক: প্রথম ধাপের পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল এক/ দুই দিনের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর। প্রথম ধাপের ভোট হবে ২৭ থেকে ২৯ ডিসেম্বর। তবে বিষয়টি কমিশনের অনুমোদনের ওপর নির্ভর করছে। বৃহস্পতিবার নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে তিনি একথা জানান। প্রথম ধাপের সবকটি পৌরসভায় ইভিএমে ভোট হবে বলে জানা যায়।

অন্যান্য পৌরসভার মতো পাবনা জেলার ভাঙ্গুড়া পৌর এলাকায়ও নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে । দলীয় মনোনয়ন পেতে পোস্টার, ব্যানার, মতবিনিময়, পথসভাসহ নানা কর্মসূচিতে কেন্দ্র ও তৃণমূলের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা ।  চায়ের স্টল, হাট-বাজার ও জনবহুল স্থানে সাধারণ মানুষের মুখেও চলছে ভোটের আলোচনা। কে কোন দলের মনোনয়ন পাবেন, এমন সব আলোচনা পর্যালোচনায় সরব হয়ে উঠেছে পৌর এলাকার জুড়ে ।

দলীয় যেকোনো ধরনের অনুষ্ঠানে সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের অনুগত নেতাকর্মী ও অনুসারীদের নিয়ে ব্যাপক শোডাউনের মাধ্যমে শীর্ষস্থানীয় ও নীতিনির্ধারক পর্যায়ের নেতাদের মনোযোগ লাভের চেষ্টা করছেন।

ইতোমধ্যে ভোটারাও শুরু করেছেন চুলছেড়া বিচার বিশ্লেষণ। যাকে ভোট দিলে এলাকার উন্নয়ন হবে-এমন ব্যক্তিকেই নির্বাচিত করার পক্ষে বেশির ভাগ ভোটার অভিমত প্রকাশ করেছেন। মেয়র প্রার্থীরা দলের টিকিট পেতে জেলা থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃস্থানীয়দের কাছে ধরনাও দিচ্ছেন। সেই সাথে চালাচ্ছেন লবিং।

মোঃ গোলাম হাসনাইন রাসেল (বর্তমান মেয়র) ও সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ভাঙ্গুড়া পৌরশাখা পাবনা। তিনি সাম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন এবং দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।  গোলাম হাসনাইন রাসেল ‘কালের সংবাদ’কে তিনি বলেন, আমি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে যতটুকু সম্ভব উন্নয়নমূলক কাজ করেছি।  এখনও চলমান রয়েছে । আরেকবার নির্বাচিত হয়ে কাজ করার সুযোগ পেলে পৌরসভাকে ঢেলে সাজানো হবে। এবং ভাঙ্গুড়া পৌরসভাকে উন্নত বিশ্বের শহরগুলোর মতো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও পরিবেশ সম্মত পৌরশহরে পরিনত করবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন । মহামারি কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে অসহায়দের মাঝে খাবার পৌঁঁছে দিয়েছি । এলাকার বাসিন্দাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বিভিন্ন প্রকার প্রচার-প্রচারণা করেছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে পৌর এলাকার মোড়ে মোড়ে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছি। তাতে আল্লাহপাক ভাঙ্গুড়া পৌরবাসীকে অনেকটাই নিরাপদে রেখেছেন ।

ভাঙ্গুড়া পৌরসভা মেয়র পদে আরেক হেবি ওয়েটের মনোনয়ন প্রত্যাশী “প্রকৌশলী মোঃ আব্দুর রহমান প্রধান”। তিনি সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা পাবনা , সাবেক মেয়র (২০১১-২০১৫) ভাঙ্গুড়া পৌরসভা, পাবনা । সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ও সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা, পাবনা । সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ভাঙ্গুড়া পৌরশাখা, পাবনা । প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক কলতান শিল্প গোষ্ঠী ও সংগীত বিদ্যালয়, ভাঙ্গুড়া ,পাবনা । উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ মির্জা স্মৃতি সংসদ, ভাঙ্গুড়া, পাবনা । সাবেক অভিভাবক সদস্য সরকারি হাজী জামাল উদ্দিন ডিগ্রী কলেজ ও ভাঙ্গুড়া জরিনা রহিম উচ্চ বিদ্যালয় ভাঙ্গুড়া পাবনা ।

ইন্জিঃ আব্দুর রহমান প্রধান কালের সংবাদ’কে বলেন, পৌর নির্বাচনে অংশ গ্রহণের ব্যাপারে কেন্দ্রের পূর্ণাঙ্গ সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি। তবে, আমরা দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে যাব না। উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অত্র পৌরসভার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক আব্দুর রহমান প্রধান। পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয়  মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন, এবং এলাকার সর্বস্তরের জনগণের সমর্থন ও দোয়া কামনা করেন তিনি।

এছাড়াও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে মোঃ আজাদ খাঁন মনোনয়ন প্রত্যাশায় প্রচার-প্রচারনায় চালিয়ে যাচ্ছেন । তিনি সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা পাবনা, সাবেক সভাপতি সরকারি হাজী জামাল উদ্দিন ডিগ্রী কলেজ শাখা ছাত্রলীগ , সাবেক সভাপতি/সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা পাবনা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা পাবনা । গতবারে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভাঙ্গুড়া পৌরসভা নির্বাচনে গোলাম হাসনাইন রাসেল-এর নিকট পরাজিত হন।

 মেয়র পদে বিএনপ‘র দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী মোঃ আব্দুল কাদের সাবেক যুবদল নেতার নাম শোনা গেলেও মাঠে নেই তিনি ।  তফসিল ঘোষনার পর পরই তারা মাঠে নামবেন বলে জানা যায় ।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে মার্চের মধ্যে দেশের সব পৌরসভা নির্বাচন শেষ করতে নির্বাচন কমিশন প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

 

এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category