বাগেরহাট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

তানজীম আহমেদ,(বাগেরহাট): বাগেরহাট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যাক্ষ ড. এস. এম. রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও বিভিন্ন অভিযোগ এনে ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল থেকে কলেজ চত্বরে অবস্থান নিয়ে ছাত্রীরা বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে অধ্যক্ষের অপসারণের দাবি তোলে। ছাত্রীদের অভিযোগ,অধ্যক্ষ কলেজের উন্নয়ন না করে কলেজ ফান্ডের টাকা নিজের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করে।

তার অনিয়মের প্রতিবাদ করলে একজন শিক্ষককে কারন দর্শানো নোটিস দেওয়া হয়। একারনে বুধবার সকালে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা একসাথে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয় ও বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকে।
আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, আমাদের কলেজে বিভিন্ন সময় উন্নয়নের টাকা বরাদ্দ আসলেও অধ্যাক্ষ স্যার কোনো উন্নয়ন কাজে তা ব্যায় না করে আত্নসাত করেছেন ।

কলেজ ক্যাম্পাসের পুকুরের মাছ ধরে নেওয়া এবং কলেজের গাছ কেটে নিজের বাসার কাজে লাগানো, কলেজের কর্মচারিদের গায়ে হাততোলা সহ আরো অনেক অভিযোগ রয়েছে স্যারের বিরুদ্ধে। আমরা এই অধ্যাক্ষের অপসারন চাই।
এসময় অর্থনীতির শিক্ষক আসাদুজ্জামান বলেন, আমি অধ্যক্ষ স্যারের নানা অনিয়মের প্রতিবাদ করায় তিনি অন্যায় ভাবে আমার বিরুদ্ধে কারন দর্শানো নোটিস দিয়েছেন।

ছাত্রীদের দাবির সাথে সহমত পোষন করে কলেজের অপর এক শিক্ষক আল আমিন হোসেন বলেন,ছাত্রীরা চায় তাদের অধ্যক্ষের অপসারন না হওয়া পর্যন্ত তারা কলেজের ক্লাস করবে না।এ বিষয়ে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. এস. এম. রফিকুল ইসলাম বলেন ,আমার বিরুদ্ধে অত্র কলেজের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক আসাদুজ্জামানসহ কয়েকজন শিক্ষক একত্রিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে কলেজের ছাত্রীদের একত্রিত করে ক্লাস বর্জনের ঘোষনা দিয়েছে।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন,এই কলেজে পিসি কলেজ, উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার্থীদের কাজ থেকে টাকার বিনিময়ে নকলের সুবিধা দেওয়া হত যেটা আমি বন্ধ করায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category