Wednesday, March 31st, 2021




বাংলাদেশ দলের কাছে ক্ষমা চাইলেন ম্যাচ রেফারি

বাংলাদেশ দলের কাছে ক্ষমা চাইলেন ম্যাচ রেফারি

কালের সংবাদ ডেস্ক: একটি দল বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে পরে ব্যাট করতে নেমেছে। কিন্তু তারা জানেই না, বৃষ্টি আইন (ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতি) তাদের টার্গেট কত? ইতিহাসে এমন নজির আছে কি না, জানা নেই। অন্তত ডিএল ম্যাথড শুরুর পর থেকে এমন ঘটনা ঘটতে দেখা যায়নি। যা ঘটেছে মঙ্গলবার নেপিয়ারে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে।

ম্যাকলারেন পার্কে ডাকওয়ার্থ লুইসের ভুলের বলি হয়েছে বাংলাদেশ। তিন-তিনবার টাইগারদের লক্ষ্য বদলানো হয়। প্রথমে ১৪৮, পরে ১৭০ আর শেষবারের মতো ঠিক করে দেয়া হয় ১৭১ রানের জয়ের লক্ষ্য।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১৭.৫ ওভারে নিউজিল্যান্ড তুলেছিল ৫ উইকেটে ১৭৩ রান। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দেয়া হয় ১৬ ওভারে ১৪৮।

সেই লক্ষ্য মাথায় নিয়ে ব্যাটিংয়েও নেমে গিয়েছিল টাইগাররা। ১.৩ ওভারে দলের রান যখন বিনা উইকেটে ১২, তখনই খবর এলো-লক্ষ্য ভুল হিসেব হয়েছে। ডাকওয়ার্থ পদ্ধতিতে জিততে হলে ১৬ ওভারে করতে হবে ১৭০ রান। এরপর আরেকবার সংশোধনী- ১৭০ নয়, দরকার ১৭১।

ম্যাচ অফিশিয়ালদের এমন দৃষ্টিকটু ভুল নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ সমালোচনা হয়েছে। খোদ নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার জিমি নিশাম টুইট বার্তায় লিখেন, ‘কত লক্ষ্য সেটি না জেনেই কি করে রান তাড়া করা সম্ভব? নেহায়েত পাগলামি!’

আসলেই পাগলামি! এমন পাগলামির জন্য ম্যাচ শেষে ক্ষমা চাইলেন ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো। ভুল স্বীকার করে তিনি বলেন, লক্ষ্য তাড়া করতে নামার আগেই ডিএল তালিকা পৌঁছে দেয়া উচিত ছিল।

ভুল তো ভুলই। কিন্তু কখনও কখনও ভুলের ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া সম্ভব হয় না। যেমনটা সম্ভব হয়নি বাংলাদেশের। লক্ষ্যহীন এক ম্যাচে উদভ্রান্তের মতো ছুটে টাইগাররা ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে হেরেছে ২৮ রানে। তাতে তিন ম্যাচের সিরিজটা এক ম্যাচ বাকি থাকতে খুইয়ে বসেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

এদে  আরিফ/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category