বাংলাদেশে প্রায় ৪ কোটি তামাক ব্যবহারকারী করোনার ঝুঁকিতে

কালের সংবাদ অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশে প্রায় চার কোটি তামাক ব্যবহারকারী মারাত্মকভাবে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিতে রয়েছেন।মঙ্গলবার তামাকবিরোধী সংগঠন প্রজ্ঞা (প্রগতির জন্য জ্ঞান) এবং অ্যান্টি টোব্যাকো মিডিয়া এলায়েন্সের (আত্মা) যৌথ উদ্যোগে ‘কেমন তামাক কর চাই: বাজেট ২০২০-২১’ শীর্ষক ওয়েবিনারে অর্থনীতিবিদরা এ কথা বলেন।

অথর্নীতিবিদ ও জাতীয় তামাকবিরোধী মঞ্চের আহ্বায়ক ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ বলেন, করোনা আমাদের জন্য একটি সুযোগ তৈরি করেছে। আমরা এই সুযোগে কল্যাণের পথ বেছে নেবো। এক্ষেত্রে আমাদের তামাক ব্যবহার বন্ধ করতে হবে এবং সার্বজনীন স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে গুরুত্ব দিতে হবে।

ওয়েবিনারে সংযুক্ত হয়ে সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, এবারের বাজেটে যদি তামাক পণ্যের করারোপের ক্ষেত্রে মৌলিক পরিবর্তন না আসে, যদি ১১ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আয়ের সুযোগ আমরা হারাই, তাহলে নৈতিকভাবে আমি আসন্ন বাজেটকে সমর্থন করতে পারবো না।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের (বিআইডিএস) সিনিয়র রিসার্চ ফেলো অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ বলেন, ধূমপান কমাতে সিগারেটের স্তর সংখ্যা কমানোর বিকল্প নেই। আসন্ন বাজেটে সিগারেটের বিদ্যমান চারটি মূল্যস্তর বিলুপ্ত করে দুটি নির্ধারণ করা দরকার।

এর কারণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, একাধিক মূল্যস্তর ও বিভিন্ন দামে সিগারেট ক্রয়ের সুযোগ থাকায় ভোক্তা স্তর পরিবর্তন করার সুযোগ পায়। ফলে তামাকের ব্যবহার কমাতে কর ও মূল্য পদক্ষেপ যথাযথবাবে কাজে আসে না।

সভায় ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য তামাক কর বিষয়ে বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category