শেখ হাসিনা

বঙ্গবন্ধুর নীতি-আদর্শ মেনে চলতে ছাত্রলীগকে শেখ হাসিনার নির্দেশ

কালের সংবাদ ডেস্ক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নীতি ও আদর্শ মেনে চলার জন্য ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ এবং সুশিক্ষা ও মেধার আলোয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের আলোকিত হওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। শুক্রবার বিকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছাত্রলীগের ‘লিডারশিপ ওরিয়েন্টশন’ প্রোগ্রামে মোবাইল ফোনে যুক্ত হয়ে তিনি এ নির্দেশ দেন।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রহমানের মোবাইল ফোনে ছাত্রলীগের নেতাদের উদ্দেশে প্রায় ১০ মিনিটের বেশি বক্তব্য দেন শেখ হাসিনা। এ সময় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বিকাল ৫টায় মোবাইল ফোনে প্রধানমন্ত্রী প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন। তার বক্তব্য লাউড স্পিকারে শোনানো হয়। বক্তব্যে তিনি বিভিন্ন সাংগঠনিক নির্দেশনা দেন।

পরে ছাত্রলীগ সভাপতি জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমরা ছাত্রলীগের লিডারশিপ ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম হাতে নিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের বলেছেন ছাত্রলীগকে সঠিক পথে চলতে হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনেক বড় স্বপ্ন, লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে ছাত্রলীগ গঠন করেছিলেন। ছাত্রলীগের সঠিক ইতিহাস জাতির কাছে তুলে ধরতে হবে।

দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বসহ সব গণতান্ত্রিক অর্জনে ছাত্রলীগের ভূমিকার কথা প্রধানমন্ত্রী তুলে ধরেন। ছাত্রলীগের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীকে প্রধানমন্ত্রী ভালোভাবে লেখাপড়া করার পরামর্শ দেন। সুন্দর আচরণের মাধ্যমে মানুষের মন জয় করার কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর লেখা দুটি বই ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’সহ গোয়েন্দা রিপোর্টের সব বই পড়তে তিনি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পরামর্শ দেন।

বিএনপিকে ভোট দেয়ার কোনো কারণ নেই, এর আগে ‘লিডারশিপ ওরিয়েন্টেশন’ কার্যক্রমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান বলেন, দেশের মানুষ উন্নয়নের যে চিত্র এবং উন্নয়নের যে সুফল তারা ভোগ করছে, সে কারণে আওয়ামী লীগের সভাপতি বঙ্গবন্ধুকন্যা মনোনীত প্রার্থীকেই তারা ভোট দেবেন। নৌকা মার্কাকেই তারা বিজয়ী করবেন।

‘নির্বাচনে আমরা অবশ্যই বিজয়ী হব’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, এটা তাদের নতুন কথা নয়। তারা পুরনো কথাই নতুন করে বলেন। তবে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ১০ বছরে বাংলাদেশের মানুষকে যে অভাবনীয় উন্নয়ন উপহার দিয়েছেন, তাতে আমি আশা করি বিএনপিকে কোনো অর্থেই ভোট দেয়ার কোনো কারণ নেই। সুতরাং মানুষ যদি তাদের ভোট না দেয় তাহলে তারা কিভাবে বিজয়ী হবে আমার জানা নেই।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category