পল্লী কবি জসীম উদ্দীন

কবি: বজলুর রশীদ চৌধূরী
মিশিগান,যুক্তরাষ্ট্র 
মহা নিদ্রায় বিভোর আমার প্রাণের পল্লী কবি,
তুমি মোদের পল্লী বালা তুমি পল্লীর ছবি ।
পল্লী মায়ের যত ব্যথা তোমার বুকে বাঁধে,
তাই তো আমার পল্লী মা তোমার লাগি কাঁদে ।
রোগে শোকে কাতর হয়ে কাঁদছে সোনার গাঁ,
সেবক সেজে ধূঁয়ে দিলে পল্লী মায়ের পা ।
মেঠো পথে চলে চাষী বেদের গান করে,
আসমানীকে দেখিয়ে দিলে ভেন্না পাতার ঘরে ।
কত প্রেমের গান কর রাখালের সুর ধরি,
‘নক্সী কাঁথার মাঠে’ গিয়ে হোঁচট খেয়ে পড়ি ।
সুজন বাদিয়ার নামে কবি কত গান আসে,
সাপের খেলা খেলে ওরা নায়ে নায়ে ভাসে।
রুগ্ন শিশুর পাশে বসে কাঁদে পল্লী মাতা,
ক্ষণে ক্ষণে কমছে আয়ূ বাড়ছে শিশুর ব্যথা ।
নিশি রাতে ‘ পল্লী জননী’ ছেলের আয়ূ গুনে,
রহিম ওজা নাই কি দেশে ,ছেলের কথা শুনে ।
যত দু:খ পেলে কবি ফিরিয়ে নাহি দিলে,
‘প্রতিদানে’ সকল ব্যথা আপন করে নিলে ।
‘কবর’ পাশে বসে কাঁদ আপন নাতি লয়ে,
পল্লী মায়ের ঘরের ব্যথা নিজে গেলে বয়ে ।
তোমার কথা কত লিখব তুমি কবি অসীম,
গ্রাম বাংলার ঘরে ঘরে পল্লী কবি জসীম।
সাধক তুমি ধারক তুমি- তুমি পল্লীর সঙ্গীত,
তোমার লাগি কেঁদে ফিরে তোমার বজলুর রশীদ।
এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category