পদ্মা ব্যাংকের কর্মকর্তাকে প্রাণ নাশের হুমকী খেলাপী ঋণ গ্রহীতার, থানায় সাধারণ ডায়রী 

মেহেদী হাসান, জামালপুর:  জামালপুর সদরে পদ্মা ব্যাংকের মহিলা কর্মকর্তা মনিকা খাতুনকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়েছে স্কার্ফ এগ্রো প্রাইভেট লিঃ এর শফিকুল ইসলাম জুলহাস নামে প্রভাবশালী খেলাপী ঋণ গ্রহীতা ।
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে (১৫ জুন) শনিবার বিকালে জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারন ডাইরী করেছে ওই ব্যাংক কর্মকর্তা। জিডি নং-৬৭৭, তারিখ. ১৫.০৬.২০১৯ইং।
পদ্মা ব্যাংক বকশীগঞ্জ শাখা সুত্রে জানা যায়, তৎকালীন ফার্মাস ব্যাংকের অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মাহাবুবুল হক বাবুল চিশতির সুপারিশে ২৯২.৬৬ শতাংশ জমির বিপরীতে জামালপুরের বজ্রাপুরে অবস্থিত স্কার্ফ এগ্রো প্রাইভেট লিঃ এর নামে ২০১৪ সালের ২২ মে তারিখে ৭ কোটি টাকা ঋণ প্রদান করে।
ব্যাংকের নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে একই দিন ২য় ধাপে আরও ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়। একই বছরের ১ অক্টোবর তৃতীয় ধাপে আরও ২ কোটি, ২০১৫ সালের ১২ এপ্রিল ১কোটি, ১৯ মে ১ কোটি ও ২৩ জুন আরও ১ কোটি মোট ১৫ কোটি টাকা ঋণ প্রদান করে।
পদ্মা ব্যাংক ব্যাংকের বকশীগঞ্জ শাখার ব্যাবস্থাপক আশরাফ আল বারী জানান, জামালপুরের বজ্রাপুরে স্কার্ফ এগ্রো প্রাইভেট লিঃ এর মালিক শফিকুল ইসলাম জুলহাস ২০১৫ সালে বকশীগঞ্জ শাখা থেকে ১৫ কোটি ঋণ নেন। ঋণ গ্রহনের পর থেকে তিনি কোন প্রকার লেনদেন না করায় সর্বশেষ সুদে-আসলে টাকা পরিমান এখন ২৬ কোটি টাকা।
এমতাবস্থায় ঋণটি সমন্বয় করার জন্য পদ্মা ব্যাংক প্রধান কার্যালয় হতে মনিকা খাতুন নামে একজন অফিসার নিয়োগ করে। গত ১৩ জুন পদ্ম ব্যাংক কর্মকর্তা র্স্কাফ এগ্রো প্রাইভেট এর মালিক ও ঋণ গ্রহীতা জুলহাসের অটো রাইস মিলে গিয়ে ঋণটি সমন্বয় করার জন্য অনুরোধ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাণ নাশের হুমকিসহ ১০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তাকে ফাঁসানোর হুমকি প্রদান করে জুলহাস ।
এর পর থেকে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে ব্যাংক কর্মকর্তা। এ বিষয়ে শফিকুল ইসলাম জুলহাস এই প্রতিবেদক কে জানান, তিনি ব্যাংকে চাকুরী করেন । তিনি তার দায়িত্ব পালন করছেন, এ কারণে ওই মহিলা ব্যাংক কর্মকর্তাকে হুমকি দেওয়ার কোন প্রশ্নই আসে না।
প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ২২ মে তৎকালীন ফার্মাস ব্যাংকের বকশীগঞ্জ শাখা থেকে ৭ কোটি ঋণ নেয় জুলহাস। পরবর্তী সময়ে ১ বছরের মধ্যেই আরও ৫ কিস্তিতে আরও ৮কোটি টাকাসহ ১৫কোটি ঋণ নেয় জুলহাস। পরবর্তী সময়ে ঋণটি কোন সম্বন্বয় করেননি জুলহাস। ঋণটির সুপারিশ করেন ফার্মাস ব্যাংকের সাবেক অডিট কমিটির চেয়ারম্যান ও বর্তমানে দুর্নীতির দায়ের কারাগারে থাকা মাহাবুবুল হক বাবুল চিশতি।
এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category