নির্বাচনে অস্ত্র ও বিস্ফোরকের ব্যবহার রোধে বিশেষ ব্যবস্থা: মনিরুল ইসলাম

কালের সংবাদ ডেস্কঃ  আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অস্ত্র ও বিস্ফোরকের ব্যবহার রোধে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। যারাই নির্বাচন ঘিরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করবে তাদেরকে কঠোরভাবে দমনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে পুলিশ।

নির্বাচনী ডামাঢোলে জঙ্গিদের ব্যাপারেও সতর্ক থাকার তাগিদ দিয়েছেন নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়েছে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা। শুরু দিন থেকেই হামলা ভাঙচুর নিয়ে পাল্টাপাল্টি দোষারোপ করছে রাজনৈতিক দলগুলো। এসবের মধ্যে রয়েছে নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা, গাড়ি ভাঙচুর, নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলাসহ নানা অভিযোগ।

কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, অবৈধ অস্ত্র যারা আনে তাদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা আমাদের অব্যাহত আছে। এটা পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে, যে নিবার্চনকে সামনে রেখে অবৈধ অস্ত্র যেন না বাড়ে। বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা যদি কেউ করে তাকে কঠোরভাবে দমন করা হবে।

এই প্রেক্ষাপটে নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলাদেশের সকল রেঞ্জের ডিআইজি এবং সব জেলার পুলিশ সুপারদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। গঠন করা হয়েছে পাঁচ সদস্যের তদারকি সেল। যার দায়িত্বে রয়েছেন পুলিশ প্রধান।

সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক সোহেল রানা বলেন, যে কেউ নির্বাচন পরিবেশ বিনষ্ট করা জন্য অপচেষ্টা চালাবে। বাংলাদেশ পুলিশ তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

 

এনআই/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category