ঠাকুরগাঁওয়ে ঝড়ে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালযে় ফাটল ও বিভিন্ন অংশ ধ্বসে পরেছে

মোঃ জানে আলম শেখ, ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ১৫ নং ঝাড়গাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় টি গত মঙ্গলবার রাতে ব্যাপক ফাটল ও বিভিন্ন অংশে ধসে পরেছে। বিদ্যালয়টিতে এখন ক্লাস করা ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য অনুপোযোগী।
অত্র বিদ্যালের প্রধান শিক্ষক মোঃ দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিদ্যালয়ে আমি যোগদান করার পর থেকেই ঝুকিপূর্ণ দেখে আসছি, তাই আমি ছাত্র-ছাত্রীদের কথা বিবেচনা উর্ধতন কর্মকর্তাকে  অবগত করেছি। আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ তাই শিশুদের নিরাপত্তা আমাদেরকে নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য তিনি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে বিদ্যালয়ের নতুন বিল্ডিং এর জন্য জোর দাবি জানান।
এদিকে  বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ ইসহাক আলী  বলেন, বিদ্যালয়টি হঠাৎ করে ঝরে ছাদের বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে পড়েছে এবং বিদ্যালয়ের দেয়াল গুলো ফেটে গিয়েছে। এমতাবস্থায় এই ভবনে ক্লাস করা ছাত্রছাত্রীদের জন্য কোনমতেই সম্ভব নয়। এ বিদ্যালয়টি কখন ভেঙ্গে পরবে আমরা এই ভয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের কে শ্রেণী কক্ষ থেকে সরিয়ে নিয়েছি।
 বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র রিমন বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ের সম্পূর্ণ দেওয়াল গুলো ফেটে গেছে এমতাবস্থায় আমরা বিদ্যালয় ক্লাস করতে পারতেছি না।  ফলে আমাদের লেখাপড়ার় ব্যাঘাত হচ্ছে।
 এ বিষয়ে উপজেলা  শিক্ষা অফিসার মোঃ মাসুদ রানার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিদ্যালয়টির সমস্যা সম্পর্কে আমরা জেনেছি। ফলে বিদ্যালয়টি কে আমরা পূর্বেই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছি  ও ঝুঁকিপূর্ণ সাইন বোর্ড ঝুলানোর জন্য কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি এবং দ্রুত বিদ্যালয়ের সমস্যা সমাধানে নতুন বিল্ডিং এর জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কে জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এদিকে  বিদ্যালয়ের  সমস্যার কারণে এলাকার সচেতন অভিভাবক তাদের সন্তানদের কে স্কুলে পাঠাতে অনীহা প্রকাশ করছে। তারা মনে করেন বিদ্যালয়ের যে অবস্থা এ অবস্থায় ছাত্র-ছাত্রীরা যদি সেখানে ক্লাস করে তাহলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category