Saturday, November 21st, 2020




চেয়ারম্যান কালামের থানায় জিডি, বেনাপোল প্রতিনিধির নামে মামলার হুমকি

চেয়ারম্যান কালামের থানায় জিডি, বেনাপোল প্রতিনিধির নামে মামলার হুমকি

বেনাপোল প্রতনিধিঃ ’বকেয়া টাকা চাওয়ায় এবার চায়ের দোকান ভাঙচুর করল সেই চেয়ারম্যন’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় ভুক্তভোগি দোকানদার আজিজুল হক এর নামে শার্শা থানায় সাধারন ডায়েরী করেছে চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ। এছাড়া ও তিনি দৈনিক প্রতিদিনের কথার বেনাপোল প্রতিনিধির নামে মামলা করারও হুমকি প্রদান করেছেন। আর ইনি  হচ্ছেন নিজামপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ।এমনি হুমকির তথ্য নিশ্চিত করলেন বেনাপোল এর একজন সিনিয়র সাংবাদিক।

প্রত্যক্ষদর্শী নিজামপুর ইউপি সদস্য আমিনুর রহমান চায়ের দোকান ভাঙচুর করার দৃশ্য নিজ চোখে দেখলেও প্রতিবাদ করতে পারে নাই। তিনি বলেন ভাঙচুর এর দৃশ্য আমি সহ অনেকে উপভোগ করেছে। দোকানদার আজিজুল হক আবারও অভিযোগ করে বলেন আমি একজন সাধারন চায়ের দোকানদার। এমনি আমার দোকান উঠিয়ে দিয়েছে। তারপর আবার থানায় মামলা মোকদ্দমা করছে এই চেয়ারম্যান। আমার দোকানের সকল চায়ের কাপ প্রিচ ভেঙে দিয়ে আমার রুজী বন্ধ করে  এখন আমার বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র আটছে এই কালাম। আমার দোকানের পাওনা টাকার জন্য পরিষদে কয়েকবার এ নিয়ে শালিশ বিচার  হয়েছে। শালিশ বিচারে আমার ১৩ ৩৮৮ টাকার মধ্যে চেয়ারম্যান ১০ হাজার টাকা দিতে রাজি হলেও তিনি না দিয়ে ঘুরা ঘুরি করে।

কথিত আছে তিনি চুল ধাড়ি শেফ করিয়েও নাপিতকে টাকা দেয় না। সেলুনের দোকানে তার এক থেকে দেড় হাজার টাকা বাকি। গতবছর তিনি কর্মসৃজন এর টাকা নিয়ে দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় খবর প্রকাশ হয়। সংবাদটি অতি সত্য হওয়ায় স্থানীয় ও জাতিয় দৈনিকে অত্যান্ত গুরুত্ব সহকারে  খবর প্রকাশের পর তিনি দিশেহারা হয়ে আবার কিছু পত্রিকায় প্রতিবাদও দেন।

চায়ের দোকনাদার আজিজুল হক এর নামে শার্শা থানায় জিডি হয়েছে কিনা ওসি বদরুল আলম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন হ্যা একটি সাধারন ডায়েরী হয়েছে।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category