Monday, October 5th, 2020




চিকিৎসায় নোবেল পাচ্ছেন তিন বিজ্ঞানী

চিকিৎসায় নোবেল পাচ্ছেন তিন বিজ্ঞানী

কালের সংবাদ আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চিকিৎসায় বিশেষ অবদানের জন্য এ বছরও তিন বিজ্ঞানীকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। সিএনএনের প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

সোমবার সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে এক অনুষ্ঠানে নোবেল কমিটি এ ঘোষণা দেয়। পুরস্কারে মনোনীতরা হলেন- হার্ভে জে আল্টার, মিখায়েল হাউটন এবং চার্লস এম রাইস।

হেপাটাইটিস সি ভাইরাস আবিষ্কারের জন্য তারা ২০২০ সালের জন্য এই পুরস্কারে মনোনীত হলেন। এর আগে চিকিৎসায় নোবেলের জন্য মনোনীত ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান বা সংক্ষিপ্ত তালিকা সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি।

নোবেল কমিটির সেক্রেটারি জেনারেল সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে চিকিৎসাশাস্ত্রে নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা করেন।

অক্সিজেনের উপস্থিতি পাওয়ার পর মানবদেহের কোষ কীভাবে সাড়া দেয়, এই গবেষণার স্বীকৃতি হিসেবে গত বছর চিকিৎসায় নোবেল পান মার্কিন চিকিৎসাবিদ উইলিয়াম জি. কেইলিন জুনিয়র ও গ্রেগ এল সেমেনজা এবং ব্রিটিশ চিকিৎসাবিদ স্যার পিটার জে. র‌্যাটক্লিফ।

মঙ্গলবার পদার্থবিজ্ঞান, বুধবার রসায়ন, বৃহস্পতিবার সাহিত্য, শুক্রবার শান্তি ও পরের সোমবার অর্থনীতিতে নোবেলজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে। এর মধ্যে শুধু শান্তিতে নোবেল পুরস্কারটি ঘোষণা করা হয় নরওয়ে থেকে।

চলতি বছর মর্যাদাপূর্ণ নোবেল পুরস্কারজয়ীদের গত বছরের এক লাখ ১০ হাজার ডলার বেশি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন নাবেল ফাউন্ডেশনের প্রধান লারস হেইকেনস্টেন।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান ও কৃতিত্বের স্বীকৃতি হিসেবে ১৯০১ সাল থেকে এই পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। এই পুরস্কারের জনক বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের উপার্জিত অর্থ দিয়ে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসাবিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কারে গোড়াপত্তন ঘটে। ১৯৬৮ সালে এ তালিকায় যুক্ত হয় অর্থনীতি।

আগামী ১০ ডিসেম্বর আলফ্রেড নোবেলের মৃত্যুবার্ষিকীতে স্টকহোমে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে ১০ মিলিয়ন সুইডিশ ক্রোনার, একটি মানপত্র ও একটি স্বর্ণপদক প্রদানের কথা থাকলেও করোনার কারণে তা বাতিল করা হয়েছে। নোবেলজয়ীরা নিজ নিজ দেশে বসেই ভার্চুয়াল নোবেল পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নিবেন।

অক্সিজেনের প্রাপ্যতার সঙ্গে শরীরের কোষের সাড়া দেয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে গবেষণা করে গত বছর চিকিৎসা বিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পান মার্কিন ও ব্রিটিশ তিন বিজ্ঞানী।

ওই তিন নোবেলজয়ী হলেন, মার্কিন চিকিৎসাবিদ উইলিয়াম জি কেইলিন জুনিয়র, গ্রেগ এল সেমেনজা ও ব্রিটিশ চিকিৎসাবিদ স্যার পিটার জে রযাামটক্লিফ। অক্সিজেনের উপস্থিতি পাওয়ার পর মানবদেহের কোষ কীভাবে সাড়া দেয়; সে বিষয় নিয়ে যুগান্তকরী গবেষণার স্বীকৃতি হিসেবে তারা এই পুরস্কার পান।

ডিনামাইট আবিষ্কারক আলফ্রেড নোবেল ৩ কোটি ১০ লাখ ক্রোনার রেখে গিয়েছিলেন, আজকের বাজারে যা প্রায় ১৮০ কোটি ক্রোনের সমান। তার রেখে যাওয়া ওই অর্থ দিয়েই ১৯০১ সাল থেকে মর্যাদাপূর্ণ এ নোবেল পুরস্কারের প্রচলন করা হয়। এতদিন এ নোবেল পুরস্কারের অর্থমূল্য ছিল ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার।

আলফ্রেড নোবেলের উপার্জিত অর্থ দিয়ে ১৯০১ সালে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, চিকিৎসাবিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কারে গোড়াপত্তন ঘটে। ১৯৬৮ সালে এ তালিকায় যুক্ত হয় অর্থনীতি।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category