গফরগাঁওয়ে শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষককে বরখাস্ত

কালের সংবাদ অনলাইন ডেস্ক: ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে (১০) শ্লীলতাহানির অভিযোগে জিল্লুর রহমান ওরফে শামীম নামে এক সহকারী প্রাথমিক শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। আজ বুধবার ময়মনসিংহ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শফিউল হকের স্বাক্ষরযুক্ত এক চিঠির মাধ্যমে তাকে বরখাস্ত করা হয়। একই অভিযোগে শিক্ষার্থীর বাবা গফরগাঁও থানায় একটি মামলাও দায়ের করেছেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধোপাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জিল্লুর রহমান ওরফে শামীম গত রবিবার দুপুরে পঞ্চম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি কক্ষে ডেকে নিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা ও ভিডিও ধারণ করেন। এ সময় শিক্ষক মেয়েটিকে এই ঘটনা কাউকে জানাতে নিষেধ করেন।

জানালে আগামী পিএসসি (প্রাথমিক সমাপনী) পরীক্ষা দিতে দিবেন না এবং ধারণ করা ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেন। ছুটির পর বাড়ি ফিরে মেয়েটি এই ঘটনা তার বাবা-মাকে জানায়। পরে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পরে।

পরে গত মঙ্গলবার সকালে এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা মানবন্ধন, বিক্ষোভ করেন। খবর পেয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সালমা আক্তার বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। এরই প্রেক্ষিতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অফিস আদেশের মাধ্যমে অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কারাদেশ দেন। ভুক্তভোগীর বাবা বলেন, মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা করেছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সালমা আক্তার বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল সরকার বলেন, দায়েরকৃত মামলার ভিত্তিতে আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category