কু-প্রস্তাব দেয়ায় শিক্ষককে জুতা ও বেত দিয়ে পেটালেন শিক্ষিকা

কালের সংবাদ: কু-প্রস্তাব দেয়ায় শিক্ষককে জুতা ও বেত দিয়ে পেটালেন শিক্ষিকা! ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ: শিক্ষিকাকে কু-প্রস্তাব দেয়ায় শিক্ষককে জুতা ও বেত দিয়ে পিটিয়েছেন শিক্ষিকা।

ঘটনাটি রংপুরের চিলামারি উপজেলার চরপাত্র খাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, চরপাত্র খাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল আজিজ মন্ডল গত দুই বছর থেকে জনৈক সহকারী শিক্ষিকাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। তার কু-প্রস্তাবে রাজি না থাকায় শিক্ষক উক্ত সহকারী শিক্ষিকাকে কারণে- অকারণে মানুষিকভাবে ও কর্মস্থলে হয়রানী করতে থাকে।

এরই সূত্র ধরে সোমবার স্কুল চলাকালীন সময়ে সহকারি শিক্ষক আব্দুল আজিজ মন্ডল ক্লাস চলাকালীন সময়ে আবারও শিক্ষিকাকে কু-প্রস্তাব দেয়। এতে শিক্ষিকা অসম্মতি প্রকাশ করলে শিক্ষক আব্দুল আজিজ মন্ডল ক্ষীপ্ত হয়ে প্রধান শিক্ষক শাহিদা খাতুনকে রেহানার নামে মিথ্যা অভিযোগ করে।

পরে প্রধান শিক্ষক রেহেনাকে বিষয়টি জানালে রেহেনা ঐ শিক্ষকের প্রতি ক্ষীপ্ত হয়ে পায়ের স্যান্ডেল এবং বাশের বেত দিয়ে মারতে যায়। শিক্ষিকা রেহানা জানান, দীর্ঘদিন থেকে সহকারি শিক্ষক আব্দুল আজিজ মন্ডল আমাকে কু-প্রস্তাব দেয় এবং ক্লাসে পাঠদানের আমাকে বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় কথা বলে। তাই মাইর দিছি। এ ব্যাপারে চরপাত্র খাতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহিদা খাতুন ঘটনার সত্যতা শিকার করে জানান, এর আগেও এমন হয়েছিলো আমরা বসে সেটি সমাধান করেছি। কিছুদিন পর আবারও ঐ শিক্ষক একই ঘটনা ঘটায়।

অভিযুক্ত সহকারি শিক্ষক আব্দুল আজিজ মন্ডলের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনা অস্বীকার করে জানান, পাওনা টাকা চাইতে গেলে ওই শিক্ষিকা আমাকে মারপিট করেন। তার বিরুদ্ধে সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন এবং বানোয়াট। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক জানান, খবর পেয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে আমি প্রধান শিক্ষকের কাছে ঘটনার সত্যতা জেনে নিশ্চিত হয়েছি।

এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category