কলকাতা নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সকলের রিপোর্ট নেগেটিভ

বিপ্রদ্বীপ দাস, (হুগলি-কলকাতা,ভারত): আপাতত স্বস্তি এই রাজ্যে। কলকাতা নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসায় চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মী মিলিয়ে মোট ৬৪ জনের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে রবিবার যে ৩০ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছিল, তাঁদের সকলের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। গত দু’দিনে আরও ৩৪ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য এসএসকেএম হসপিটালে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার নমুনা গিয়েছে সেই ১৪ জনের।

হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান, চিকিৎসক শান্তনু সেন জানান, কোয়রান্টিনে যাওয়া চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের দ্রুত কাজে ফেরানোর চেষ্টা করছেন কর্তৃপক্ষ।

ওই হাসপাতালের সিসিইউ-এ চিকিৎসাধীন ৩৪ বছরের এক যুবকের মৃত্যু হয় শনিবার। চিকিৎসকদের সন্দেহ হওয়ায় তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষায় পাঠানো হয়েছিল। রিপোর্ট আসার আগেই তিনি মারা যান। রিপোর্টে জানা যায়, তিনি করোনা-পজিটিভ ছিলেন। এর পরেই চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের তালিকা তৈরি করে কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়।

এই ঘটনায় এ দিন উদ্বেগ প্রকাশ করেছে চিকিৎসক সংগঠনগুলি। ‘অ্যাসোসিয়েশন অব হেলথ সার্ভিস ডক্টর্স’-এর তরফে মানস গুমটা বলেন, ‘‘এন আর এসে প্রায় ৮০ জনকে কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে। এর প্রভাব পড়বে পরিষেবায়। এর পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, প্রশাসনের তা নিশ্চিত করা উচিত।’’ ‘সার্ভিস ডক্টর্স ফোরাম’-এর সাধারণ সম্পাদক সজল বিশ্বাসের বক্তব্য, একসঙ্গে এত জনকে কোয়রান্টিনে পাঠানো দুর্ভাগ্যজনক।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category