41685656

করোনা ভাইরাসের প্রভাব এখন বাংলাদেশের পোশাক শিল্পেও

কালের সংবাদ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে চীনের অর্থনীতিতে। এর ছাপ পড়ছে বাংলাদেশের পোশাক খাতেও। দীর্ঘমেয়াদে বড় অঙ্কের ক্ষতির আশঙ্কা নিট পোশাক প্রস্তুতকারকদের সংগঠন বিকেএমইএর। তবে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ বলছে, চীনা নববর্ষের ছুটি শেষ হলে বোঝা যাবে প্রকৃত চিত্র।

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যত বাড়ছে ততই সংকুচিত হয়ে আসছে দেশটির সঙ্গে বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়িক হিসাব। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, এরই মধ্যে থমকে গেছে কাঁচামাল আমদানি কার্যক্রম। এতে অনিবার্য ক্ষতির মুখে পড়তে হবে আগামীতে। বিকেএমইএ-র ১ম সহ সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, নববর্ষের যে ছুটিটা ছিল সেটা তারা দুই সপ্তাহ বাড়িয়েছে। এরমধ্যে আমাদের যে কাঁচামালগুলো আসার কথা ছিল সেগুলো আরো দুই সপ্তাহ দেরিতে আসবে। ফলে আমাদের প্রডাকশনে সমস্যা হবে, আমাদের শিপমেন্টে দেরি হবে, বায়ারদের সঙ্গে আমাদের নতুন করে নেগেশিয়েট করতে হবে। আরো ৩/৪ মাস পর এটা আরো প্রকট আকার ধারণ করতে পারে।

শিল্প মালিকদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে তৈরি পোশাকের বেশিরভাগ কাপড়ই আমদানি করতে হয়। যার বড় অংশ আসে চীন থেকে। আনা হয় প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি, আনুষঙ্গিক প্রস্তুত পণ্যও। চীনে রফতানিও হয় বাংলাদেশি পোশাক। এ অবস্থায়, করোনার স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব বিবেচনা করেই করণীয় ঠিক করার কথা ভাবছে বিজিএমইএ।

বিজিএমইএর জেষ্ঠ্য সহ সভাপতি ফয়সাল সামাদ বলেন, চীনের নববর্ষের ছুটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা বুঝতে পারছি না যে আমাদের অবস্থাটা কী।তবে ক্ষতি মোকাবিলার প্রস্তুতির পাশাপাশি চীন থেকে সরে আসা ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে উদ্যোগ নেয়ার পরামর্শ অর্থনীতিবিদদের।

অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে একদিকে যেমন আমাদের পোশাকখাতে কিছু রিস্ক তৈরি হয়েছে, অন্যদিকে চীন যেসব দেশে রফতানি করতো তারা যদি সেখান থেকে রফতানি কমায় তাহলে সেই বাজারগুলো বাংলাদেশ ধরতে পারে কিনা, সেখানে আবার একটা সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছে। সেক্ষেত্রে আমাদের একটা চ্যালেঞ্জ হতে পারে যে নতুন যেসব অর্ডারগুলো আসবে এগুলো মাধ্যমিক যে পণ্য সেগুলো আমরা কোথা থেকে আনব।

ভবিষ্যতে এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে এখন থেকেই কাঁচামাল আমদানি ও প্রস্তুত পণ্য রফতানির বিকল্প বাজার তৈরির পরামর্শ তাদের।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category