গুজব

করোনা নিয়ে যেসব গুজব সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে

কালের সংবাদ অনলাইন ডেস্ক: করোনার প্রাদুর্ভাবে বিশ্ব যখন বিপর্যস্ত তখন এ ভাইরাসকে ঘিরে গুজবও ছড়িয়েছে এক শ্রেনীর মানুষ। যা ডালপালা মেলে একসময় বড় বিপদের কারণ হয়ে উঠেছে। যুক্তি ও বিজ্ঞানকে ছাড়িয়ে নেট জগতে ভুল তথ্যের সমারোহ ঘটেছে। বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠা এমন দশ গুজব তুলে ধরা হলো।

* বহু আগেই বিশ্বে করোনা: যদিও চীনের উহানে গত নভেম্বর বা ডিসেম্বরের শুরুতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়, কিন্তু প্রচার হয় যে, ২০২০ সালের বহু আগেই বিশ্বে করোনা রোগী ছিল।
* ফাইভ-জি মোবাইল ফোন টাওয়ার করোনা ছড়াচ্ছে: ইউরোপজুড়ে ছড়িয়ে পড়া এমন গুজবে অনেক মোবাইল ফোন টাওয়ার হামলার শিকার হয়।
* মানুষের তৈরি, উহানের ল্যাব থেকে এসেছে: করোনা মানুষের তৈরি, এ গুজব ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠে। অথচ এটি মিথ্যা, বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত নয়।
* কভিড-১৯ মৌসুমি ফ্লু : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে এটি মৌসুমি ফ্লু নয়, আলাদা একটি ভাইরাস, যার ওষুধ এখনও আবিষ্কার হয়নি।
*করোনাভাইরাস ছড়ানোর পেছনে বিল গেটস: মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের হাত রয়েছে করোনা ছড়ানোর পেছনে। এমন একটি ষড়যন্ত্র তত্ত্ব ব্যাপকভাবে প্রচার হয়। অথচ করোনার বিরুদ্ধে যারা সামনে থেকে লড়ছেন তার একজন বিল গেটস।
* অ্যালকোহল পানে করোনা মারা যায়: এ গুজবে কান দিয়ে অ্যালকোহল পান করে অনেক মানুষ মারা গেছে। অথচ মিথ্যা ও ভুল তথ্য।
*হার্ড ইমিউনিটি: টিকা নয় হার্ড ইমিউনিটির মাধ্যমেই করোনা দূর করা সম্ভব। এটি প্রচারণা থাকলেও প্রমাণিত নয়।
* একবার আক্রান্ত হলে আর হবে না: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে এটি প্রমাণিত নয়।
* উষ্ণ আবহাওয়ায় করোনা টিকতে পারে না: গবেষকরা বলছেন যে কোনো আবহাওয়ায় এটি ছড়াতে পারে।
* গোমূত্র করোনা থেকে বাঁচাতে পারে: ভারতে এ প্রচারণায় বিশ্বাস করে অনেকেই গোমুত্র পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়।

এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category