উপকূলীয় আশ্রয় কেন্দ্রে খাবারের ব্যবস্থা করেনি সরকার: রিজভী

কালের সংবাদ ডেস্ক: তাঁতী দলের উদ্যোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এক প্রতীকী গণ-অনশনে রুহুল কবির রিজভী এ কথা বলেন। আজ শনিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই গণ-অনশনের আয়োজন করা হয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘কয়েক দিন ধরে আমরা বলছি, ঘূর্ণিঝড় ধেয়ে আসছে। সরকার তার কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। আমরা আমাদের নেতা-কর্মীদেরও বলেছি উপদ্রুত মানুষদের সাহায্যের জন্য, সহায়তার জন্য।

রিজভী বলেন, ‘উপকূলীয় আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে সরকার কোনো খাবারের ব্যবস্থা করেনি। সেখানে রান্না করে খাওয়ার জায়গা সংকুলান হচ্ছে না। হাজার হাজার মানুষকে ওই ছোট্ট জায়গায় আশ্রয় নিতে হয়েছে। এই যে সাইক্লোন সেন্টার, সেখানে এত মানুষের নিজে রান্না করে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। এ জন্য সরকারেরই ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা।’

বিরোধী দল তো কথা বলবেই, বিরোধী দল তো প্রতিবাদ করবেই, দাবি জানাবেই। তিনি বলেছেন, সরকার ধরে রেখেছে, তারা ক্ষমতা আগলে রেখেছে। সরকারের দায়িত্ব এই দুর্গত মানুষদের আশ্রয় দেওয়া, তাদের খাবার দেওয়া, তাদের প্রাণে বাঁচানো।

বিএনপি নেতা রিজভী অভিযোগ করেন, প্রধানমন্ত্রী চান, খালেদা জিয়াকে আটকে রেখে নির্বাচন করবেন। তাঁকে ক্ষমতায় থাকতেই হবে, গণতন্ত্র জাহান্নামে যাক, সুষ্ঠু নির্বাচন চুলায় যাক—তাতে তাঁর কিছু যায়-আসে না। তিনি আরও বলেন, ‘তোরা যে যা বলিস ভাই, আমার সোনার হরিণ চাই। ক্ষমতায় থাকার জন্য এই সরকার সব ধ্বংস করে দিয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রক্রিয়া ধ্বংস করে দিয়েছে। আমি তো বলি, সব তো পেলেন, গণতন্ত্রকে মাটি চাপা দিয়ে সবকিছু পেলেন, এবার দেশনেত্রীকে সুস্থভাবে বাঁচার জন্য মুক্তি দিন।’

তাঁতী দলের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে গণ-অনশনে বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সদস্যসচিব মজিবুর রহমান, যুগ্ম আহ্বায়ক বাহা উদ্দিন, মৎস্যজীবী দলের নাদিম চৌধুরীসহ তাঁতী দলের নেতারা বক্তব্য দেন।

এম কে ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category