ইসলামী বিপ্লবের ৪০তম বর্ষপূর্তি উদযাপন করছে ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইরান ১০ দিনব্যাপী ইসলামী বিপ্লবের ৪০তম বার্ষিকী উদ্যাপন করছে। একই সঙ্গে দেশটিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের টানা পোড়েন এবং ব্যাপক অর্থনৈতিক মন্দা নিয়ে উত্তেজনা বাড়ছে। গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে বার্ষিকী উদ্যাপনের অনুষ্ঠানমালা শুরু হয় এবং তা ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে।
রাষ্ট্রীয়ভাবে বার্ষিকী পালনের অনুষ্ঠানমালার সমাপনী উপলক্ষে আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি তেহরানের আজাদী (স্বাধীনতা) স্কয়ার অভিমুখে এক শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে এতে প্রেসিডেন্ট রুহানী বক্তব্য রাখবেন। ইরানের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও গণপ্রতিনিধিবৃন্দ এসময় তার সঙ্গে থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে। খবর এএফপি’র।
ইরান চলতি বছর বিপ্লবের ৪০ বর্ষপূর্তি উদ্যাপন করছে। ইসলামী দৃষ্টিভঙ্গিতে ৪০ বছর পূর্ণতার প্রতীক। এই বয়সেই নবী মুহাম্মাদ (সাঃ) নবুওতপ্রাপ্ত হন।
ডলারের বিপরীতে রিয়ালের মূল্য হ্রাস পেয়েছে, যা জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে। এদিকে নিষেধাজ্ঞার কারণে বৈদেশিক বিনিয়োগ বন্ধ এবং ইরানের তেল বিক্রিও হ্রাস পেয়েছে।
এর প্রতিক্রিয়ায় ইরানী কর্তৃপক্ষ ‘অনুপ্রবেশকারিদের’ বিরুদ্ধে হুশিয়ারি প্রদান করেছে। দেশের প্রতি হুমকী প্রদানকারিদের বিরুদ্ধে ‘জাতীয় ঐক্যের’ আহ্বান জানিয়েছে।.
এদিকে বায়ু দুষণ, ভূমি ক্ষয়, খরা ও মরুকরনসহ পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখোমুখি ইরান।
এতোদসত্বেও বিগত ৪০ বছরে বিভিন্নক্ষেত্রে এগিয়ে গেছে দেশটি। পরিবেশবাদি সংগঠনের প্রধান ইসা কালান্তরি বলেছেন, স্বাস্থ্য, শিল্প, সেবা ও শিক্ষা খাতে অগ্রগতি সাধিত হয়েছে।
তবে, পরিবেশের ক্ষেত্রে হুশিয়ারি জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, পরিবেশ পরিস্থিতির রেকর্ড নিতান্তই ‘উদ্বেগকর’।

বিপ্লবের অর্জন:
সামরিক সাফল্যে ইরান গৌরবান্বিত। বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে তেহরানের সমরাস্ত্র প্রদর্শনীতে একই সঙ্গে সর্বাধুনিক অস্ত্রসস্ত্র ও সক্ষমতা তুলে প্রদর্শিত হচ্ছে।
প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ৪০ বছরের অর্জনের অংশ হিসেবে ইরান নব-নির্মিত ক্রুজ মিসাইলের সফল পরীক্ষা সম্পন করেছে।
এদিকে ওয়াশিংটন ও এর মিত্ররা তেহরানের বিরুদ্ধে ক্ষেপনাস্ত্রের মজুত বাচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে বলেছে যা, সমগ্র মধ্যপ্রাচ্যের জন্য হুমকী। যদিও ইরান এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে যে, কেবলমাত্র প্রতিরক্ষার কাজেই দেশটির ক্ষেপনাস্ত্র স্বক্ষমতা নিয়োজিত রয়েছে।
বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে তেহরানের চতুর্দিকে বিপ্লবের অর্জনের গৌরব গাঁথায় ছেয়ে গেছে ।
প্রযুক্তিগত উন্নয়ন প্রদর্শনের লক্ষে ইরান গত মাসে পায়াম (মেসেজ ইন পার্শিয়ান) নামে একটি স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করলে তা কক্ষপথে পৌঁছতে ব্যর্থ হয়।
ধারণা করা হচ্ছে, বার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে ইরান অবশেষে স্বদেশে তৈরি আরেকটি স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।
টেলিভিশনের খবরে বলা হয়, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা, প্রয়াত খোমেনীর উত্তরাধীকার আয়াতুল্লা আলী খামেনী বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিপুল সংখ্যক বন্দিকে মুক্তি দিতে সম্মত হয়েছে। প্রধান বিচারপতি সাদেঘ আমলি লারিজানিকে উদ্ধৃত করে ইরানের গণমাধ্যম জানায়, ৫০ হাজার বন্দি মুক্তি পেতে পারে। বিচারবিভাগ সূত্র জানায়, সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১৭ সালের মার্চ মাসে ইরান ২ লাখ ১৭ হাজারেও বেশি লোককে বন্দি করে।

সুত্র: বাসস

এনআই/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category