0

অসুস্থ গাভী জবাই করে মাংসবিক্রির চেষ্টা, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কসাই উধাও

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল: নড়াইলে অসুস্থ গাভী জবাই করে মাংসবিক্রির চেষ্টা! পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেলেন দুই কসাইদার অসুস্থ গাভী মাত্র ১২ হাজার টাকায় কেনা হয় গাভীটির শরীরে ঘাঁসহ বিভিন্ন স্থানে পচন ধরেছিল। এ অবস্থায় জবাই দেয়া হয়’ পলাতক কসাইদারদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ।

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার এড়েন্দা গ্রামে অসুস্থ গাভী জবাই করে মাংসবিক্রির চেষ্টাকালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কসাইসহ সংশিষ্টরা পালিয়ে গেছে। গতকাল দুপুরে ওই গ্রামের আবু বক্কারের বাড়ির পাশে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, জনসাধারণের মাঝে বিক্রির জন্য গতকাল  দুপুরে অসুুস্থ ওই গাভীটি জবাই করা হয়। প্রায় তিনমাস আগে বাচ্চা দেয়ার পর গাভীটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। তবুও জবাই করে মাংসবিক্রির চেষ্টা চলছিল।

এ খবর পেয়ে লোহাগড়া থানার নবাগত ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উপস্থিত হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে জবাইকৃত গাভী ফেলে দুই কসাইদার পালিয়ে যায়। এরা হলো-পাশের পদ্মবিলা গ্রামের ওয়াদুদ মিয়ার ছেলে কসাই দেলবার (৩৫) ও নিরু ঠাকুরের ছেলে কসাই হিমায়েত ঠাকুর (৫০)।

এ সময় কসাইদের সহযোগী জান্নাত মোল্যাকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি জানান, এড়েন্দা গ্রামের আবু বক্কারের কাছ থেকে গাভীটি কেনা হয়েছে।

এদিকে স্থানীরা জানান, অসুস্থ গাভীটি মাত্র ১২ হাজার টাকায় কিনেছেন কসাইদাররা। এই গাভীটির শরীরে ঘাঁসহ বিভিন্ন স্থানে পচন ধরেছিল। এ অবস্থায় গাভীটি জবাই দেয়া হয়। এছাড়া তারা প্রায়ই অসুস্থ গাভী কিনে এড়েন্দা হাটসহ আশেপাশে জবাই করে মাংস বিক্রি করে বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

অন্যদিকে, লোহাগড়া থানার ওসির উপস্থিতিতে আবু বক্কারের বাড়ির পাশে জবাইকৃত গাভীর মাথা, চামড়াসহ মাংস মাটিতে পুতে ফেলা হয়েছে।

এস ইসলাম/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category